মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব

দিয়ানতুল্লাহ চৌধুরী ওরফে লুকা চৌধুরী (১৮০১-১৯০৬): দিয়ানতুল্লাহ চৌধুরী চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বর্ধিষ্ণু গ্রাম মহারাজপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন নীল বিদ্রোহের নায়ক।

 

 

গিরিশ চন্দ্র সিংহঃগিরিশ চন্দ্রসিংহ বিশাল ভূ-সম্পত্তির অধিকারী ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দানশীল ও সমাজসেবী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন।

 

 

রফিক মন্ডলঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার নারায়নপুরের রফিক মন্ডল ওহাবি আন্দোলনের নেতা ছিলেন।

 

 

গনিতজ্ঞ প্রফেসর আব্দুর রহিম (১৮৯৫-১৯৫৮):জন্ম পৌর এলাকার খামার (বর্তমানে উপর রাজারামপুর) গ্রামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রথম পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক। গণিত বিষয়ক তাঁর অসংখ্য গ্রন্থ পাঠ্যপুস্তক হিসেবে জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

 

 

ড. জহুরুল হক (১৯২৩-১৯৯৮):রাজারামপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি শিক্ষা, সাহিত্য, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছেন।

 

 

বাবু অভয় প্রদ মুখার্জী (১৯২২-৯৯):চাঁপাইনবাবগঞ্জের সবশ্রেণীর মানুষের শ্রদ্ধারপাত্র বাবু অভয়পদ মুখার্জী পেশায় একজন স্কুল শিক্ষক ছিলেন। শিক্ষকতা করে তিনি যে অর্থ পেতেন তা অন্য গরীব ছাত্র-ছাত্রীদের দান করতেন।

 

 

ইলা মিত্রঃ যশোরের বাগুটিয়া গ্রামে আদি নিবাস হলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জের ইতিহাসে জড়িয়ে আছে তাঁর নাম কলকাতা থেকে লেখাপাড়া শেষ করে তিনি ১৯৪৫ খ্রিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামে আসেন রমেন মিত্রের বধু হিসেবে। ১৯৪৭-৫০ খ্রিঃ নাচোলে অনুষ্ঠিত তেভাগা আন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব দেন। এজন্য আজও তাঁর কথা মনে রেখেছে এখানকার আবাল-বৃদ্ধ বনিতা।

 

 

রমেন মিত্র (হাবু বাবু):নাচোলের তেভাগা আন্দোলনের নেত্রী ইলা মিত্রের স্বামী এবং নিজেও আন্দোলনের প্রথম সারির নেতা ।

 

কুতুব উদ্দিন (গম্ভীরার জনক)

 

রফিকুন্নবী(র, নবী)